নানা গুনে বেগুণ

বেগুণ হল অন্যতম জনপ্রিয় সবজি। সারাবছর এটি পাওয়া যায়। এর বিজ্ঞানসম্মত নাম হল—সালানাম মেলােনজেনা।।

পুষ্টিগুণঃ বেগুণ হল পুষ্টিগুণ সম্পন্ন সবজি। পুষ্টি বিজ্ঞানীদের কথায় ১০০ গ্রাম খাদ্যোপযােগী অংশে আছে-

কার্বোহাইড্রেট-৪ গ্রাম।                 লােহা-০.৯ মিগ্রা,

প্রােটিন-১.৪ গ্রাম।                      ক্যালসিয়াম–১৮ মিগ্রা,

ফ্যাট ০.৩ গ্রাম                         ফসফরাস-৪৭ মিগ্রা,

আঁশ—১.৩ গ্রাম                        পটাশিয়াম-২০০ মিগ্রা.

রিবোেফ্লাবিন-০.১১ মিগ্রা,              ভিটামিন-সি’-১২ মিগ্রা,

নিকোটিনিক অ্যাসিড-০.৯ মিগ্রা.       ভিটামিন-এ’—১২৪ আই. ইউ

উপকারিতাঃ

০ যাঁদের ঘুম ভাল হয় না তারা যদি একটু বেগুণ পােড়ায় মুধ মিশিয়ে সন্ধ্যেবেলা চেটে চেটে খান তাহলে তাদের রাত্তিরে ভাল ঘুম হবে।

০ কচি বেগুণ পুড়িয়ে রােজ সকালে খালি পেটে একটু গুড় মিশিয়ে খেলে ম্যালেরিয়ার দরুণ লিভার বেড়ে যাওয়া কমে যায় যায়। লিভারের দোষের জন্যে চেহারায় হলদেটে ভাব এলে তা ক্রমশ দূর হয়ে যায়।।

০ বেগুনের তরকারি, বেগুণ পােড়া, বেগুনের স্যুপে রােজ যদি একটু হিং ও রসুন মিশিয়ে খাওয়া যায় তাহলে বায়ুর প্রকোপ তাে কমেই, যদি কারাে পেটে বায়ু গােলকের সৃষ্টি হয়ে থাকে সেটাও কমে যায় বা সেরে যায়।

০ মহিলাদের নিয়মিত ঋতু না হলে বা কোনাে কারণে ঋতু বন্ধ হয়ে গেলে, তারা যদি শীতকালে নিয়ম করে বেগুনের তরকারি, বাজরার রুটি এবং গুড় খান তাহলে উপকার পাবেন। অবশ্য যাঁদের শরীরে গরমের ধাত বেশি তাদের পক্ষে এটা না খাওয়াই ভাল।

০ নিয়মিত বেগুণ খেলে মূত্রকৃচ্ছতা সারে ।

০ প্রস্রাব পরিষ্কার হওয়ায় প্রারম্ভিক অবস্থায় কিডনির ছােট পাথরও গলে গিয়ে প্রস্রাবের সঙ্গে বেরিয়ে যায়।

o ছােট ছােট গােল গােল সাদা বেগুণ অর্শের পক্ষে উপকারী।

০ বেগুনের পুলটিস বাঁধলে ফোড়া তাড়াতাড়ি পেকে যায়।

০ বেগুনের রস খেলে ধতুবাের বিষ নেমে যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here